ভর্তিযুদ্ধে রাবিপ্রবি ছাত্রলীগের ব্যতিক্রমী আয়োজন!

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

‘‘এসো নবীন দ্রোহানলে জ্বলে উঠি প্রতিবাদে-প্রতিরোধে, এসো সবুজ, মুজিবের গান গাই জাগরণের উৎসবে’’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের “এ” ইউনিটে (ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি অনুষদ), “বি” ইউনিটে (বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ) ও“সি” ইউনিটে (বায়োলজিক্যাল সায়েন্স অনুষদ) ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে আসা ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে, শিক্ষার্থীদের জন্য ব্যতিক্রমধর্মী আয়োজন করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখার নেতাকর্মীরা।

শুক্রবার (০৬ ডিসেম্বও ২০১৯) সকালে রাঙামাটির স্থানীয় সাংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি দীপংকর তালুকদারের নির্দেশনায় রাঙামাটি পৌরসভার ও জেলা যুবলীগের সভাপতি মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরীর সার্বিক সহযোগিতায় বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে ছাত্রলীগের কর্মীরা ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের পানি দিয়ে এবং কেন্দ্রে পৌঁছে দিতে নানাভাবে সহযোগিতা করেছেন।

ভর্তিচ্ছুকদের জন্য তথ্য কেন্দ্র, সুপেয় পানি বিতরণ, কলমসহ বিভিন্ন সার্ভিসের ব্যবস্থা করেছিল সংগঠনটি। আর সেই কাজে রাবিপ্রবি শাখার কর্মীরা নানাভাবে প্রতক্ষ্য-পরোক্ষভাবে সহযোগিতা করেছেন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের। ছাত্রলীগ সূত্রে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা প্রায় ১ হাজার ৫শত শিক্ষার্থীদের মাঝে সুপেয় পানি বিতরণ, কলমসহ বিভিন্ন সেবা দেওয়া হয়েছে।

রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী ক্যাম্পাসের মূল ফটকের সামনে সরেজমিনে দেখা গেছে, রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা গলায় স্বেচ্ছাসেবকের কার্ড ঝুলিয়ে কাঁধে পানির বোতলভর্তি কেস নিয়ে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কাছে তা বিতরণ করছেন।

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা জানান, ‘এটা আমাদের দায়িত্ব। কারণ আমরাও ছাত্র। আমরা হচ্ছি শিক্ষা শান্তি ও প্রগতির পতাকাবাহী সংগঠন। এ জন্য শিক্ষার প্রশ্নে শিক্ষার্থীদের কলম দিয়েছি। আর পানি হচ্ছে একটা জরুরি প্রয়োজন। শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের পানির প্রয়োজন হয়। তাই আমরা পানির ব্যবস্থা করেছি।

নেতৃবৃন্দরা আরও জানান, ‘ভবিষ্যতে আরও ভালো কিছু করার চেষ্টা করব। আর আমরা যে রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সেটি যেন আমাদের আচরণ দেখে বোঝা যায়। সে জন্য আমরা আমাদের এসব কার্যক্রম অব্যাহত রাখবো।’

প্রসঙ্গত: রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রাবিপ্রবি) এ ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে ৪ বছর মেয়াদী ১ম বর্ষ স্নাতক সম্মান শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষা ৬ ডিসেম্বর ২০১৯খ্রিঃ (শুক্রবার) তারিখে অনুষ্ঠিত হয়েছে এবং আগামীকাল ৭ ডিসেম্বর ২০১৯খ্রিঃ (শুক্রবার ও শনিবার) তারিখেও অনুষ্ঠিত হবে।

এবারের ভর্তি পরিক্ষায় “এ” ইউনিটে (ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি অনুষদ) ৫০টি আসনের জন্য ভর্তিচ্ছু আবেদনকারীর সংখ্যা ১৪৪৭ জন, “বি” ইউনিটে (বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ) ৭৫টি আসনের জন্য ভর্তিচ্ছু আবেদনকারীর সংখ্যা ৯৬৩ জন এবং “সি” ইউনিটে (বায়োলজিক্যাল সায়েন্স অনুষদ) ২৫টি আসনের জন্য ভর্তিচ্ছু আবেদনকারীর সংখ্যা ৬২২ জন। ভর্তি পরীক্ষা রাঙামাটি শহরে অবস্থিত দুটি কেন্দ্রে- লেকার্স পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ এবং শাহ্ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় এ অনুষ্ঠিত হয়েছে।