মন্ত্রীর চাপে গতি আসলো ব্রিজের নির্মাণ কাজে!

॥ নুরুল কবির ॥

বান্দরবানে সদর উপজেলার রেইচা-গোয়ালিয়া খোলা ব্রিজ অপার সম্ভাবনার হাতছানি দিচ্ছে। সাময়িক প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে সাঙ্গু নদীর উপর ব্রিজটির কাজ বর্তমানে দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে। ব্রিজটির দু-পারে রয়েছে কয়েক লক্ষ মানুষের বসতি। নির্মাণ কাজ শেষ হলে দু’পাড়ের বাঘমারা, চেমী, শামুকছড়ি, ডলুপাড়াসহ কয়েক লক্ষ মানুষের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পূরণ হবে। পাশাপাশি যোগাযোগ ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নয়ন এবং কৃষি পণ্য আমদানি-রপ্তানি এবং বর্ষা মৌসুমে যাতায়াত সহজ হবে।

জানা গেছে, পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি অগ্রধিকার ভিত্তিতে রেইচা-গোয়ালিয়া খোলা এলাকায় যোগাযোগ স্থাপনের লক্ষে ২০১৬ সালের ১২ই মে ব্রিজটির নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করেন। ২শ’ ২০মিটার পিসি গার্ডার ব্রিজের কার্যাদেশ পায় শেখ হেমায়ত আলী এন্ড ইউ টি মং (জেভি) নামক প্রতিষ্ঠান। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের অর্থায়নে বাস্তবায়নাধীন গার্ডার ব্রিজটির বরাদ্দ ধরা হয়েছিল ১২ কোটি ৬১ লাখ ৫৮ হাজার টাকা।
কিন্তু কয়েক দফায় মেয়াদ বাড়ানো হলেও, সাড়ে তিন বছরে অর্ধেক কাজও শেষ করতে পারেনি ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান। এই অবসস্থায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর ব্যর্থ ঠিকাদার বাদ দিয়ে চলতি বছর নতুন ঠিকাদার দিয়ে পুনরায় কাজ শুরু করেন।

সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা যায়, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু সাদত মো: জিল্লুর রহমান ঠিকাদারকে সঙ্গে নিয়ে নিজেই ব্রিজটির নির্মাণ কাজ তদারকি করছিলেন।

এসময় তিনি জানান বলেন- আগামী জুন মাসের মধ্যে কাজ শেষ করার জন্য এলজিইডি সার্বক্ষণিক অগ্রগতি পর্যবেক্ষণ করছে। ব্রিজটি দ্রুত নির্মিত হলে এলাকার মানুষের জন্য ভালো হবে। এসময় স্থানীয় বাসিন্দারাও বর্তমানে ব্রিজের কাজ নির্মাণ কাজ অনেক দূর এগিয়েছে বলে স্বীকার করেন।

এদিকে কাজের বর্তমান ঠিকাদার জহিরুল হক ভুট্টু বলেন- আর বেশি দিন মানুষকে ভোগান্তি পোহাতে হবে না। পার্বত্যমন্ত্রীর অগ্রাধিকার ভিত্তিতে স্থাপিত এই ব্রিজটির কাজ শেষ করার জন্য এলজিইডির মাধ্যমে তারা দ্রুতগতিতে কাজ করে যাচ্ছেন।

উল্লেখ্য, চলতি মাসের এপ্রিলের ২৩ তারিখ ব্রিজটি সরেজমিনে পরিদর্শনে যান পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর। এসময় নির্ধারিত সময় পার হয়ে গেলেও অর্ধেক কাজ সম্পন্ন না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি। দ্রুত সময়ে ব্রিজটি সম্পুর্ণ করার নির্দেশনাও প্রদান করেন তিনি।