শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে রাঙ্গামাটি সরকারি কলেজে আলোচনা সভা

॥ শহিদুল ইসলাম হৃদয় ॥

সারাদেশের ন্যায় রাঙামাটি সরকারি কলেজেও শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি পালনে শনিবার সকাল ১০টায় কলেজের একটি কক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করে কর্তৃপক্ষ।আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেছেন কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ মঈন উদ্দীন। শিক্ষক প্রফেসর মফিজুল হক এর সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে কলেজের উপাধ্যক্ষ তুষার কান্তি বড়ুয়া, শিক্ষক পরিষদ সম্পাদক প্রফেসর ইব্রাহিম খলিলসহ কলেজের শিক্ষক ও বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

জাতির সূর্য সন্তানদের স্মরণে আয়োজিত উক্ত আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস। বাঙালি জাতির শোকের দিন। স্বজন হারানোর বেদনাবিধুর দিন। বাঙালির জাতীয় জীবনে একাধারে শোক ও শক্তির প্রতীক এই দিনটি। বিজয়ের ঊষালগ্নে দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তান বুদ্ধিজীবীদের হারানোর দুঃসহ যন্ত্রণার দিন।

নয় মাসের রক্তক্ষয়ী মুক্তিসংগ্রামের শেষলগ্নে বাঙালি যখন চূড়ান্ত বিজয়ের দ্বারপ্রান্তে ঠিক তখনই একাত্তরের ১৪ ডিসেম্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর সহযোগী এদেশীয় নরঘাতক রাজাকার, আলবদর, আলশামস ও শান্তি কমিটির সদস্যরা মেতে ওঠে দেশের বুদ্ধিজীবীদের বর্বরোচিত হত্যাযজ্ঞে।

বিজয়ের চূড়ান্ত মুহূর্তে বাঙালি শিক্ষাবিদ, সাহিত্যিক, আইনজীবি, চিকিৎসক, সাংবাদিকসহ দেশের মেধাবী সন্তানদের পরিকল্পিতভাবে সেই নৃশংস নিধনযজ্ঞ গোটা বিশ্বকেই হতবিহ্বল করে তোলে। সেই নৃশংস হত্যাযজ্ঞ স্মরণে প্রতি বছর ১৪ ডিসেম্বর পালন করা হয় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস।

শোকাবহ এ দিনে পরম শ্রদ্ধায় ও ভালোবাসায় গোটা জাতি স্মরণ করে মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের। শপথ নেয় শোককে শক্তিতে পরিণত করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সুখী-সমৃদ্ধ ও মর্যাদাশীল দেশ গড়ার মাধ্যমে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্বপ্ন বাস্তবায়নের।