নাইক্ষ্যংছড়িতে বিজিবি ও বিজিপি‘র পতাকা বৈঠক: সীমান্তচুক্তি মতেই ফায়ারিং করবে মিয়ানমার

pic--
হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী, নাইক্ষ্যংছড়ি:: নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম সীমান্তে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনীর ব্যাটালিয়ন কমান্ডার (অধিনায়ক) পর্যায়ে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে শুরু হয়ে ওই বৈঠক দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত স্থায়ী হয়।

বাংলাদেশ-মিয়ানমার মৈত্রী সেতু সংলগ্ন এলাকায় দু‘ঘন্টাব্যাপি অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে বিজিবির পক্ষে নেতৃত্বদেন ১৭ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে.কর্ণেল খন্দকার সাইফুল ইসলাম। এসময় বিজিপির প্রতিনিধিত্ব করেন এক নম্বর বর্ডার গার্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার লে.কর্ণেল চো তুইঝা। পতাকা বৈঠকে উভয় দেশের ৮ জন করে সর্বমোট ১৬জন সদস্য অংশ গ্রহণ করেন।

বিজিবি সূত্র মতে, সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত উক্ত বৈঠকে সীমান্ত সুরক্ষায় বাংলাদেশ ও মিয়ানমার বাহিনী দ্বিপাক্ষিক আলোচনা ছাড়াও সীমান্ত দিয়ে অবৈধ অনুপ্রবেশ, ইয়াবা ও মাদকদ্রব্য চোরাচালান, বাংলাদেশ-মিয়ানমার যৌথ সীমান্ত সার্ভে, সীমান্ত সংলগ্ন মিয়ানমারের অভ্যান্তরে ফায়ারিংয়ের ক্ষেত্রে সীমান্ত চুক্তি অনুসরণ এবং বিভিন্ন বিষয়ে খোলামেলা আলাপ-আলোচনা হয়। মিয়ানমার বাহিনী এখন থেকে সীমান্তচুক্তি অনুসরন করেই ফায়ারিং করবে বলে বিজিবিকে আশ্বস্থ করেন।

এসময় উভয় দেশের প্রতিনিধিরা পরস্পরকে সীমান্ত সংশ্লিষ্ট বিষয়ে সর্বাত্মক সহযোগীতা করার ক্ষেত্রে সম্মতি জ্ঞাপনের পাশাপাশি ১৭ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ানের দায়িত্বপূর্ণ ২৪ কিলোমিটার জুড়ে, মিয়ানমার সীমান্ত এলাকায় যেকোন সমস্যা সমাধানে উভয় ব্যাটালিয়ান, কমান্ডার পর্যায়ে বন্ধুত্বপূর্ণ আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানে প্রয়োজনীয় প্রদক্ষেপ গ্রহণে ঐক্যমত পোষন করেন।

Leave a Reply