কাউখালীতে একইদিনে মারমা গৃহবধূ ও যুবকের অপমৃত্যু!

॥ কাউখালী প্রতিনিধি ॥

কাউখালীতে পৃথক দুটি ঘটনায় দুজনের মৃত্যু হয়েছে। বেতবুনিয়া ও ঘাগড়া ইউনিয়নে বৃহস্পতিবার এ দুজনের মৃত্যু হযেছে। এতে একজন আতœহত্যা ও একজন অতিরিক্ত মদপান করে মৃুত্যবরন করেছে বলে জানা গেছে। উপজেলার বেতবুনিয়া সুইচাউ মারমা নামের ৪২ বছর বয়সী এক ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সকালে নিহতের বাড়ি থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। অপরদিকে ঘাগড়া ইউনিয়নের যৌথ খামার এলাকায় অতিরিক্ত মদপানে বৃহস্পতিবার রাতে উসাসিং মার্মা নামের ২৮ বছয় বয়সী এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। সুইচাউ মারমা (৪২) বেতবুনিয়ার গাড়িছড়া এলাকার সুইলাপ্রু মারমার স্ত্রী এবং অতিরিক্ত মদপানে মারা যাওয়া উসাসিং মারমা (২৮) ঘাগড়া ইউনিয়নের যৌথ খামার এলাকার মৃত চাহ্লাতাম্বর মারমার ছেলে।

বেতবুনিয়া পুলিশ ফড়ির ইনচার্জ মনিরুজ্জাম স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানিয়েছেন বৃহস্পতিবার সকালে গাড়ীছড়া এলাকায় একজনের মৃত্যুর সংবাদ পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে বিকেলে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়। প্রাথমিক সুরতহালে আত্মহত্য বলেই মনে হচ্ছে। ঠিক কি কারণে আত্মহত্য করে থাকতে পারে তা জানা যায়নি তবে সে দীর্ঘদিন যাবৎ ব্যথাজনিত রোগে ভুগছিলেন বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে অপমৃতু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

অপরদিকে অতিরিক্ত মদপানে নিহত উসাসিং মারমার (২৮) বিষয়ে কাউখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শহিদ উল্যাহ স্থানীয় ইউপি সদস্যর বরাত দিয়ে জানিয়েছে সে ঘুমের মধ্যে স্ট্রোকজনিত কারণে মৃত্যু হয়েছে বলে জানতে পেরেছি।