৪০০ বছরের ঐতিহ্যবাহী রাখাইন পল্লী উচ্ছেদের প্রতিবাদে মানববন্ধন

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

“উন্নয়নের জন্য উচ্ছেদ নয়” প্রতিপাদ্যে বেড়িবাঁধ/সুপার ডাইক নির্মানের জন্য ঐতিহ্যবাহী প্রায় ৪০০ বছর ধরে বসবাসরত কক্সবাজার জেলার চৌফলন্ডী রাখাইন পল্লী, বৌদ্ধ বিহার ও শ্মশান সমূহ উচ্ছেদের প্রতিবাদে শান্তিপূর্ণ মানববন্ধন ও প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে রাঙামাটিতে বসবাসরত রাখাইন সম্প্রদায়।

সোমবার সকালে ১০ টায় রাঙামাটি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়য়ের সামনে এ ঘন্টাব্যাপী শান্তিপূর্ণ মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। উক্ত মানববন্ধনে একাত্মতা প্রকাশ করে ব্যানার নিয়ে যোগদান করে বাংলাদেশ মারমা স্টুডেন্টস কাউন্সিল রাঙামাটি জেলা কমিটির নেতৃবৃন্দ।

মানববন্ধনে সাংবাদিক উচিং ছা রাখাইন কায়েসের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন প্রবীণ সাংবাদিক দৈনিক গিরিদর্পন পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক একেএম মকসুদ আহমেদ, রাঙামাটি নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ কমিটির সহকারী সাধারণ সম্পাদক এফ জিসান বখতিয়ার, বাংলাদেশ মারমা স্টুডেন্টস কাউন্সিল রাঙামাটি জেলা কমিটির সভাপতি রাম্রাচাই মারমা, সাধারণ সম্পাদক মংশিচিং মারমা সহ রাঙামাটি রাখাইন সম্প্রদায়ের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

এসময় বক্তারা বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশের উন্নয়নে অনেক কাজ করছেন কিন্তু আমাদের দাবী হলো কোন সম্প্রদায়কে উচ্ছেদ করে আপনি উন্নয়ন করবেন না। আমরাও বাংলাদেশের নাগরিক আমাদের সম্প্রদায় বিগত ৪০০ বছর ধরে বসবাস করে আসছে। তাই আজকের মানববন্ধন থেকে আমরা একটাই দাবী জানাচ্ছি আপনি কোন সম্প্রদায়কে উচ্ছেদ করে উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালনা করবেন না।

মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।