২৮ ফেব্রুয়ারী রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

চলতি মাসের ২৮ তারিখে হতে যাচ্ছে রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন। বৃহস্পতিবার দুপুরে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য নিশ্চিত করেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি জানান, আওয়ামী লীগের মেয়াদোত্তীর্ণ সাংগঠনিক জেলাগুলোর সম্মেলনের অংশ হিসেবে তিনটি জেলার সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। রাঙ্গামাটি আওয়ামী লীগের সম্মেলন ২৮ ফেব্রুয়ারি। একই মাসের ১২ তারিখ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার নির্বাচনী এলাকা কোটালীপাড়ায় এবং ১৩ তারিখ টুঙ্গীপাড়া আওয়ামী লীগের সম্মেলন হবে।

ওবায়দুল কাদের আরো জানান, আমরা সম্মেলনকে শক্তিশালী করার জন্য সাংগঠনিক কাঠামোটা পুনর্বিন্যাস বা বিন্যাস যেখানে যেখানে প্রয়োজন নিজেদের মধ্যে আলাপ-আলোচনা করেছি। জেলা সম্মেলনের আগে তৃণমূলে যেতে হবে। ওয়ার্ড, ইউনিয়ন ও উপজেলা সম্মেলনের কাজ শেষ করে জেলা সম্মেলনের তারিখ নিয়ে আমাদের যুগ্ম ও সাংগঠনিক যারা দায়িত্বপ্রাপ্ত তাদের সঙ্গে আলাপ করে পরামর্শ করে জেলা সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ  করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, মির্জা আজম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি, উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান, কার্যনির্বাহী সদস্য আমিরুল আলম মিলন, আ খ ম জাহাঙ্গীর, শাহাবুদ্দিন ফরাজী, মারুফা আকতার পপি, পারভীন জামান কল্পনাসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে রাঙ্গামাটিতে বৃহস্পতিবার বিকেলে সম্মেলনের তারিখ প্রকাশ করে আওয়ামীলীগসহ বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা স্ট্যাটাস দিতে থাকে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ২০ নভেম্বর রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের ৭ বছর পর অনুষ্ঠিতব্য সম্মেলন স্থগিত করে দলটির কেন্দ্রীয় কমিটি। সম্মেলনের মাত্র ৫দিন আগে স্থগিতাদেশে বিভ্রান্ত দলটির তৃণমূলকে কারণ ব্যাখ্যা করতে পরবর্তীতে এক বিশেষ সভা ডাকেন রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি দীপংকর তালুকদার। উক্ত সভায় তিনি জানান, কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্দেশনাতেই সম্মেলন স্থগিত হয়েছে। কেন্দ্রীয় সম্মেলনের পর জেলা সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।