পিতামাতার তর্পণের উদ্দেশ্যেই সন্তু লারমার ভারত গমনঃ জেএসএস’র বিবৃতি

॥ প্রেস বিজ্ঞপ্তি ॥

১৩ ফেব্রুয়ারী chttimes24.com এ প্রকাশিত ‘শান্তিচুক্তিবাস্তবায়নে ভারতের হস্তক্ষেপ চাইছেন সন্তু লারমাঃ দাবী ভারতীয় গণমাধ্যমের’ শীর্ষক সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছে সন্তু লারমার দল জনসংহতি সমিতি। ১৪ ফেব্রুয়ারী সংবাদ মাধ্যমে প্রেরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে দলটি জানায়,

“গত ১২ ফেব্রুয়ারি ভারতের আসাম রাজ্যের গৌহাটি থেকে নিউজ পোর্টাল ‘Northeast Now’-এ প্রকাশিত ‘Bangladesh: Push for Chittagong Hill Tracts Accord’ শীর্ষক সংবাদ প্রতিবেদন এবং উক্ত সংবাদের উপর ভিত্তি করে গত ১৩ ফেব্রুয়ারি chttimes24.com এ প্রকাশিত ‘শান্তিচুক্তিবাস্তবায়নে ভারতের হস্তক্ষেপ চাইছেন সন্তু লারমাঃ দাবী ভারতীয় গণমাধ্যমের’ শীর্ষক সংবাদের প্রতি পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতিসমিতির দৃষ্টি আকর্ষিত হয়েছে।

উক্ত অনলাইন নিউজ পোর্টালে প্রকাশিত সংবাদ সর্বৈব মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও বানোয়াট। পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির সভাপতিও পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমার মাতৃ-পিতৃ তর্পণ ও ধর্মীয় আচারাদি সম্পাদন উপলক্ষে ভারত গমনকে রাজনৈতিক হীনউদ্দেশ্যে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করা, পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি বাস্তবায়নের গণতান্ত্রিক আন্দোলনকেনস্যাৎ করা, সর্বোপরি জনসংহতি সমিতির নেতৃত্বকে বিতর্কিত করার হীন উদ্দেশ্যে বিশেষ স্বার্থান্বেষী মহল কর্তৃক এ ধরনের ভিত্তিহীন, বানোয়াট ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য-প্রণোদিত সংবাদ প্রচার করা হচ্ছে বলে জনসংহতি সমিতি মনে করে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি nenow.in, ও chttimes24.com-এ প্রকাশিত এই মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও বানোয়াট সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন করছে।”

সিএইচটি টাইমসের বক্তব্যঃ ‘শান্তিচুক্তি বাস্তবায়নে ভারতের হস্তক্ষেপ চাইছেন সন্তু লারমাঃ দাবী ভারতীয় গণমাধ্যমের’ শীর্ষক সংবাদটি সিএইচটি টাইমসের নিজস্ব কোন সংবাদ নহে। উক্ত নিউজটি আসাম ভিত্তিক অনলাইন নিউজ পোর্টাল Northeast Now’-এ প্রকাশিত ‘Bangladesh: Push for Chittagong Hill Tracts Accord’ শীর্ষক সংবাদের বাংলা অনুবাদ মাত্র।