রাঙামাটিতে ১২শ পরীক্ষার্থীর মধ্যে জেলা পরিষদের ৯ম শ্রেণীর বৃত্তি পাচ্ছে ১২০

॥ আলমগীর মানিক ॥

চলতি বছরে রাঙামাটি জেলায় ১২০ জন শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান করবে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ কর্তৃপক্ষ। এই লক্ষ্যে ইতিমধ্যেই জেলার ১২শ শিক্ষার্থীর পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রাঙামাটির জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা উত্তম খীসা।

মঙ্গলবার দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত রাঙামাটি জেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত মাসিক সভায় তিনি জানান, শিক্ষার মান উন্নয়নে পরিষদ কর্তৃক ৯ম শ্রেণী বৃত্তি প্রদানের লক্ষ্যে ইতিমধ্যে ১২শত জন শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। এরমধ্য থেকে মেধাভিত্তিক বাছাই করে ১২০জন শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান করা হবে।

এছাড়া জেলার ১৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কারিগরি শিক্ষা কার্যক্রম চলমান রয়েছে। গত বছর মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের মধ্যে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ১১৫ জন শিক্ষার্থীকে বৃত্তি অর্জনের সম্মাননা বাবদ ক্রমান্বয়ে ৬ হাজার, ৪ হাজার, ও ৩ হাজার টাকা করে প্রদান করেছে জেলা পরিষদ কর্তৃপক্ষ।

শিক্ষার গুণগতমান উন্নয়নে মেধা ভিত্তিক শিক্ষাবৃত্তি চালুর লক্ষ্যে বিগত ২০১৪ সাল থেকে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ ধারাবাহিকভাবে প্রতিবছর মাধ্যমিক পর্যায়ে এ বৃত্তি দিয়ে আসছে।

এদিকে সভায় জেলার সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা পরিণয় চাকমা জানান, ইতিমধ্যে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম শেষে ১২০ জন শিক্ষকের মধ্যে ১০৭জন শিক্ষককে নিয়োগপত্র প্রদান করা হয়েছে। বাকী ১৩জনকে যাচাই বাছাই শেষে নিয়োগপত্র দেওয়া হবে।

মঙ্গলবার রাঙামাটি জেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত মাসিক সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা। পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা ছাদেক আহমদ এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য অংসুইপ্রু চৌধুরী,পরিষদের সদস্য ত্রিদীব কান্তি দাশ,পরিষদের সদস্য সাধন মনি চাকমা,পরিষদের সদস্য অমিত চাকমা রাজু, পরিষদের সদস্য স্মৃতি বিকাশ ত্রিপুরা,পরিষদের সদস্য সান্তনা চাকমা,পরিষদের সদস্য মনোয়ারা আক্তার জাহান,পরিষদের সদস্য রেমলিয়ানা পাংখোয়া,পরিষদের সদস্য জ্ঞানেন্দু বিকাশ চাকমা’সহ হস্তান্তরিত বিভাগের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।