বিক্রিত বইয়ের লভ্যাংশ দূর্গম এলাকার নারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ব্যয় করবে অপরাজিতা

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে ২১শে ফেব্রুয়ারি রাঙামাটি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করে “অপরাজিতা”। একুশের প্রথম প্রহরে শহীদ বেদীতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ ও শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে, রিজার্ভমুখে রাঙামাটি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে বই উৎসব এর আয়োজন করে অপরাজিতা। ভিন্নধর্মী আয়োজনের লক্ষ্যও ছিলো ব্যতিক্রম।

অপরাজিতার বই উৎসবে প্রায় তিন শতাধিক বই স্থান পায়। বইগুলোর মধ্যে কিছু বই সকল বইপ্রেমীদের নজর কাড়ে। বঙ্গবন্ধু উদ্ধৃতি, কারাগারের রোজনামচা, বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী, ছোটদের বঙ্গবন্ধু, বিশ্বনেতা বঙ্গবন্ধু, শেখ রাসেল ও শেখ হাসিনা রচনা সমগ্র ১ ও ২, মুজিব গ্রাফিক নোভেল বই উৎসবের অন্যতম আকর্ষণে পরিণত হয়। মুজিব গ্রাফিক শোভা নিয়ে শিশুদের মধ্যে যথেষ্ট আগ্রহ লক্ষ্য করা গেছে।
অপরাজিতার সভাপতি সাইদা জান্নাত জানান, অপরাজিতা সবসময়ই চেষ্টা করে সকল আয়োজনের মাধ্যমেই নারীদের সৃজনশীলতা ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে। মুজিববর্ষ উদযাপনের প্রথম কর্মসূচি হিসেবে তাই আমরা মহান শহীদ দিবসকে বেছে নিয়েছি এবং বই উৎসবে বিক্রিত বই এর লভ্যাংশ থেকে যে অর্থ সংগৃহীত হবে তা পাহাড়ের দূর্গম এলাকার সুবিধাবঞ্চিত নারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ব্যয় করা হবে।
আমরা স্বাস্থ্যকর স্যানিটারী ন্যাপকিন ও ডিগনিটি বক্স পৌঁছে দিবো কিছু মহিলাদের কাছে যারা এখনো স্বাস্থ্য সুরক্ষায় উদাসীন।
অপরাজিতার সভাপতি নিশ্চিত করেছেন প্রায় অর্ধশতাধিক স্যানিটারী ন্যাপকিন ও ডিগনিটি বক্স পৌঁছে দেবার মত তহবিল সংগ্রহ করতে তাঁরা সক্ষম হয়েছেন। অপরাজিতার সম্মানিত উপদেষ্টা রাঙামাটি সদর উপজেলার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন ইসলাম এই উদ্যোগের পাশে থেকে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।