বান্দরবানে অস্ত্রধারীদের গুলিতে নিহতের ঘটনায় মানব্বন্ধন

॥ বান্দরবান প্রতিনিধি ॥

বান্দরবান সদর উপজেলার জামছড়ি এলাকায় শনিবার একদল অস্ত্রধারী গুলিতে দুইজন নিহতের ঘটনায় মানববন্ধন করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ নামে একটি সংগঠন। সোমবার সকালে শহরে প্রেস ক্লাবের সামনে এই মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পাবত্য নাগরিক পরিষদের কেন্দ্রীয় সিনিয়র সহ- সভাপতি ও বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগের বহিস্কৃত সাধারণ সম্পাদক কাজী মজিবুর রহমান, পাবত্য পাবত্য নাগরিক পরিষদের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আলমগীর কবির, ক্যাপ্টেন তারু মিঞা এবং কাজী নাছিরুল আলম।

বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে সন্ত্রাসীদের আনাগোনা বেড়ে গেছে। পাহাড়ি সন্ত্রাসীদের দৌরাত্মে সাধারণ মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে পড়ছে। এসব অবৈধ তৎরপতা ঠেকাতে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনীর জোরালে ভূমিকা রাখার আহবান তাঁরা।
গত শনিবার সন্ধ্যায় সদর উপজেলা থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে দোকানে ঢুকে এলোপাতাড়ি গুলি করে পালিয়ে যায় একদল অস্ত্রধারী।

এতে ঘটনাস্থলে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি বাচনু মারমা নিহত হন এবং ঘটনাস্থলে থাকা আতঙ্কে স্ট্রোক করে মারা যায় বাখইং মারমা নামে এক বৃদ্ধ। গুলিবিদ্ধ হয়েছিল আরও পাঁচজন।