কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তা প্রকল্পের কার্যক্রম পরিদর্শন করলেন চেয়ারম্যান বৃষ কেতু

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

গুণগত ও মানসম্মত শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে নতুন প্রজন্মকে আধুনিক বাংলাদেশের নির্মাতা হিসেবে গড়ে তুলতে অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা। তিনি বলেন, পিছিয়ে পরা পার্বত্য জেলা থেকে শিক্ষিত জাতি গড়ে তুলতে পারলে সমতলের ন্যয় আমরাও এগিয়ে যাবো। একটি শিক্ষিত জাতিই পারে দেশকে এগিয়ে নিতে।

মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে রাঙ্গামাটির সাপছড়ি ইউনিয়নের দ্বিঘলীবাগ পাড়ায় জেলা পরিষদ ও সিএইচটি-ইউএনডিপি’র কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তা প্রকল্পের কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

এ সময় আলোচনাসভায় সাপছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য পদ্ধ কুমার চাকমা, ইউনিয়নের কার্বারী লক্ষী কুমার চাকমা, কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তা প্রকল্পের জেলা কর্মকর্তা সুকিরন চাকমা, এসআইডি-সিএইচটি-ইউএনডিপি’র এফএফএস এক্সপার্ট একেএম আজাদ, শিক্ষক প্রভু রঞ্জন চাকমা বক্তব্য দেন।

জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা বলেন, কৃষিক্ষেত্রে বিভিন্ন খাতে যে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জিত হয়েছে তা বর্তমান সরকারের কৃষি ভাবনার এক বাস্তব প্রতিফলন। কারণ বর্তমান সরকার কৃষি বান্ধব সরকার। তাই বসে থেকে এখন অলস সময় পার করার সময় নেই। সরকার প্রদত্ত সুযোগ সুবিধাগুলো কাজে লাগিয়ে আমাদের কৃষি উৎপাদন বাড়াতে হবে। তিনি বলেন, আমাদের বাড়ীর আশে পাশে যে সকল পতিত জমি রয়েছে সেখানে আধৃনিক পদ্ধতিতে চাষাবাদ করে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়া সম্ভব। তিনি দ্বিঘলীবাগ পাড়ার উন্নয়নে পরিষদ হতে সার্বিক সহযোগিতা প্রদানের প্রতিশ্রুতি দেন।

উল্লেখ, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের স্ট্রেনদেনিং ইনক্লুসিভ ডেভেলপমেন্ট ইন সিএইচটি (এসআইডি-সিএইচটি)-ইউএনডিপি’র বাস্তবায়নে এবং ড্যানিডা’র অর্থায়নে পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তা (৩য় পর্যায়) প্রকল্পটি চলমান রয়েছে ।