ব্রেকিং নিউজ

সেগুন কাঠ চুরির দায়ে রাঙামাটিতে ২ ব্যক্তির ১৫ মাসের জেল

॥ আলমগীর মানিক ॥

সংরক্ষিত বনাঞ্চল থেকে মূল্যবান সেগুন কাঠ চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় বনকর্মীদের হাতে ধরা খাওয়া দুই ব্যক্তির বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলায় আসামীদের বিরুদ্ধে ১৫ মাসের সশ্রম কারাদন্ডাদেশ দিয়েছে রাঙামাটির আদালত। বৃহস্পতিবার রাঙামাটিস্থ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত এক এর বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট জাহিদ আহাম্মেদ এই রায় প্রদান করেন।

দন্ডপ্রাপ্ত আসামীদ্বয় হলেন, কাপ্তাই উপজেলাধীন চিৎমরম মুসলিম পাড়া এলাকার বাসিন্দা ইউছুপ ও ইকবাল। রায় ঘোষণার সময় আসামীদ্বয় আদালতেই উপস্থিত ছিলেন এবং রায় পরবর্তী সময়ে আসামীদেরকে জেল হাজতে নিয়ে গেছে কোর্ট পুলিশ। আদালতে বনবিভাগের প্রতিনিধি ফরেষ্টার আমজাদ হোসেন জানিয়েছেন, সাজাপ্রাপ্তরা বিগত ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাসের ১৭ তারিখে কাপ্তাইয়ের সংরক্ষিত বনাঞ্চলে অবৈধভাবে প্রবেশ করে মূল্যবান সেগুন কাঠ চুরির চেষ্ঠা করেছিলো। সেসময় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়েছিলো।

এই ঘটনায় সেদিনই ১৯২৭ সালের বনআইনের ২৬(১ক) (খ) (ঘ) ও (ছ) ধারায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছিলো। এই মামলায় আসামীরা জামিনে বের হলেও আজ রায় প্রদানের সময় আদালতে উপস্থিত ছিলো আসামীরা। তাদের উপস্থিতিতেই মাননীয় আদালত আসামীদের বিরুদ্ধে রায় ঘোষণা করেন। আদালত আসামীদের ১৫ মাস সশ্রম কারাদন্ড ১৫ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ২মাস বিনাশ্রম কারাদন্ডাদেশ প্রদান করেন। সিনিয়র চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত এর বিচারক মো.জাহেদ আহম্মেদ এই মামলার রায় প্রদান করেন।