নিজের হাতে তৈরী মাস্ক ফ্রিতে বিলি করবে জসীম

॥ মাসুদ পারভেজ নির্জন ॥

সকাল থেকে সন্ধ্যা টানা নিজের টাকা দিয়ে কিনে আনা কাপড় নিজ টেইলার্সে  মাস্ক বানিয়ে যাচ্ছেন এক দর্জি। নাম তার জসীম। বনরুপা বিএম-১ শপিং কমপ্লেক্সের ২য় তলায় “নিউ শাইমা লেডিস টেইলার্স এন্ড বুটিকস হাউস” দোকানটি তার। এই মাস্ক বিক্রির উদ্দেশ্যে নয়, বিনামূল্যে বিলি করার উদ্দেশ্যে তৈরী করা। দোকানে কোন খরিদ্দার গেলেই ফ্রিতে তার নিজের হাতে বানানো মাস্ক ধরিয়ে দিচ্ছেন।

দেশে করোনা ভাইরাস সনাক্তের সঙ্গে সঙ্গেই বেড়ে গেছে মাস্কের দাম। মুহূর্তেই যেন নাগালের বাহিরে সব ধরণের মাস্ক। ২০/৩০ টাকার মাস্ক বিক্রি হচ্ছে ১০০-১৫০ টাকায়। দেশে মাস্কের বাজারে যখন আগুন তখনই বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণের জসীমের এই উদ্যোগ অভিভূত করেছে সবাইকে। ইতিমধ্যেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার এই মানসিকতার দৃষ্টান্ত ছড়িয়ে পড়ার পর প্রশংসায় ভাসছেন জসীম।

আরো পড়ুনঃ রাঙ্গামাটিতেও মাস্কের উচ্চদামঃ ব্যবসায়ীদের ঠিকানা দিতে বললেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক

আরো পড়ুনঃ বান্দরবানে ২০ টাকার মাস্ক ২০০ টাকায় বিক্রি করায় জরিমানা

মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে জসীম হালকা হাসি দিয়ে জানান, ২০০টির মতো মাস্ক তৈরি করেছি। প্রথমে শুক্রবারের জুমার নামাজের সময় বিতরন করার ইচ্ছা থাকলেও অধিক মানুষের কারণে তবলছড়ি মসজিদে মাগরিবের নামাজের সময় মাস্ক বিতরণ করবো বলে ঠিক করেছি।

এখন তো মাস্কের চাহিদা অনেক বেশি, সবাই চড়া দামে বিক্রি করলেও আপনি এই সিদ্ধান্ত নিলেন কেন? এমন প্রশ্নের জবাবে জসীম জানান, যারা চড়া দামে বিক্রি করতছেন সেটা তাদের ব্যাপার। আল্লাহ তালাহ আমাকে যা দিয়েছেন তাতেই আমি সন্তুষ্ট। এই কঠিন সময়ে আমার যথাসাধ্য দিয়ে মানুষের পাশে থাকতে চাই।