ব্রেকিং নিউজ

২০টি দেশ থেকে রাঙামাটিতে এসেছে ২৬৩ জনঃ হোম কোয়ারেন্টাইনে ১৪৬

॥ আলমগীর মানিক ॥

পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে এখনো পর্যন্ত ১৪৬ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনের আওতায় রাখা হয়েছে বলে জেলার স্বাস্থ্য বিভাগ নিশ্চিত করেছে। ইতিমধ্যেই ২৩ জনের হোম কোয়ারেন্টাইনের ১৪দিনের মেয়াদ শেষ হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন করোনা ভাইরাস সংক্রামন প্রতিরোধ সংক্রান্ত মনিটরিংয়ের দায়িত্বে থাকা রাঙামাটি সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ মোস্তফা কামাল। তিনি জানান, হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তিদের অর্ধেকাংশই রাঙামাটি সদরের বাসিন্দা।

এদিকে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুসারে সম্প্রতি বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সর্বমোট ২৬৩ জন প্রবাসী রাঙামাটিতে প্রবেশ করেছে। তাদের মধ্যে পার্শ্ববতী দেশ ভারত থেকেই আগমনের সংখ্যা বেশি। ভারতের-৮১, চীন-২, স্পেন-২, আবুধাবি-১, উগান্ডা-১, ওমান-৯, মালয়েশিয়া-৩, আরব আমিরাত-৬, মায়ানমার-২, সৌদিআরব-৫, কাতার-২, যুক্তরাজ্য-১, আমেরিকা-১, সিঙ্গাপুর-৪, শ্রীলংকা-১, অষ্ট্রেলিয়া-১, লন্ডন-১, লেবানন-১, কঙ্গো-৫ ও সুদান থেকে ৩ জন  বিদেশ ফেরত রয়েছেন।

রাঙামাটি সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুসারে হোম কোয়ান্টাইনে রয়েছেন রাঙামাটি সদরে-৬৬, কাউখালীতে-৫, নানিয়ারচরে-১১, কাপ্তাইয়ে-১৯, রাজস্থলীতে-৪, বাঘাইছড়িতে-৪, লংগদু’তে-৩ জনসহ মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত সর্বমোট মোট ১২৩ জন বর্তমানে হোম কোয়ান্টাইনে রয়েছেন।

এদিকে মঙ্গলবার দুপুরে জরুরী বৈঠকের পর বিকেলে রাঙামাটি শহরে অভিযানে নামে সেনাবাহিনী ও জেলা প্রশাসন কর্তৃপক্ষ। জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট উত্তম কুমার দাশ ও সেনাবাহিনীর রাঙামাটি সদর জোনের মেজর হাবিব উল্লাহ খান এর নেতৃত্বে শহরের পাথরঘাটাসহ বিভিন্ন স্থানে অবস্থানরত প্রবাসীদের বাসায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় পাথরঘাটার বিদেশ ফেরৎ এক প্রবাসী নিজ বাসা থেকে বের হয়ে খাগড়াছড়ির মহালছড়িতে চলে গেছে বলে তার স্বজনরা জানিয়েছে।