ব্রেকিং নিউজ

৯ এপ্রিল পবিত্র শবে বরাতঃ করোনা সতর্কতায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের নির্দেশনা

॥ আবদুল নাঈম মোহন ॥

আগামী ৯ এপ্রিল পবিত্র শবে বরাত। যে সমস্ত বরকতময় রজনীতে আল্লাহ্পাক তাঁর বান্দাদের প্রতি রহমতের দৃষ্টি দান করে থাকেন, শবে বরাত তারই অন্যতম। তাফসীর-হাদিস ও বিজ্ঞ আলিমদের মতে শাবানের মধ্য রজনীতে পবিত্র লাইলাতুল বরাত নামে অভিহিত করা হয়। যে রাতটি হলো শাবান মাসের চৌদ্দ তারিখ দিবাগত রাত। প্রিয় নবী সাল্লাল্লাহু তা‘আলা আলায়হি ওয়াসাল্লাম, সলফে সালেহীনগণ এবং বিজ্ঞ মনীষীগণ এ রাতটিকে অত্যন্ত গুরত্ব ¡সহকারে পালন করেছেন।

অনুরূপভাবে যুগে যুগে মুসলমানগণ এরই ধারাবাহিকতায় এ রাতটি পালন করে আসছেন। এরাত্র কে কেন্দ্র করে নফল রোজা, বিশেষ নামায,দরুদ জিকির আজকার সহ রাতব্যাপী ইবাদত করে পুরো মুসলিম মিল্লাত, কিন্তু বিশ্বব্যাপী মহামারি পরিস্তিতি দিন দিন অবনতি হওয়ায় এবার শবে বরাতের ইবাদত ঘরে সম্পন্ন করার আহ্বান করেছেন ইসলামিক ফাউন্ডেশন। পবিত্র শবে বরাতের রাত্রে মসজিদের পরিবর্তে নিজ নিজ বাস-স্থানে দোয়া ও নামাজ আদায়সহ অন্যান্য ইবাদত করার জন্য সংশ্লিষ্ঠদের মুসলামদের প্রতি আহবান করছেনে বাংলাদেশ ইসলামিক ফাউন্ডেশন। শনিবার প্রতিষ্ঠানটির মহাপরিচালক আনিস মাহমুদ স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ আহবান জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, দেশে মহামারি করোনা ভাইরাসের বিস্তৃতি রোধকল্পে সরকার সকল সরকারি-বেসরকারি অফিস ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে। অত্যন্ত জরুরী প্রয়োজন ছাড়া জনসাধারণ ঘরের বাহিরে বের হতে নির্ষেধ করা হয়েছে। সব ধরনের সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় জনসমাগমে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। সকল হোম কোয়ারেন্টিন পালন করতে কঠোর ভাবে নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। বাংলাদেশ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকেও মসজিদে জুমা ও পাচঁ ওয়াক্তের ফরজ নামাজে মুসল্লিদের অংশ গ্রহণ সীমিত রাখার আহবান করা হয়েছে। অযু, নফল ও সুন্নত নামাজ বাসায় আদায় করার অনুরোধ করা হয়েছে।

এ সংকটকালীন পরিস্থিতিতে দেশের নাগরিকদের সুরক্ষা ও নিরাপত্তার স্বার্থে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত মহামারি করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত দিক নির্দেশনা মূলক বক্তব্য এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কর্তৃক ঘোষিত নির্দেমনা মার্ন্য করে আগামী ৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে নিজ নিজ বাসস্থানে বসে পবিত্র শবে বরাতের ইবাদত যথাযথ মর্যাদায় আদায় করার জন্য সকলকে বিশেষভাবে অনুরোধ জানানো হয়েছে।