অনুমতি ছাড়া চলাচল করা সিএনজি আটক করলো পুলিশ

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

রাঙামাটিতে ২৬ শে মার্চ থেকে চলছে অঘোষিত লকডাউন। সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী শহরের দূর পাল্লার বাসসহ বন্ধ হয়েছে পাহাড়ি রাস্তায় চলাচল করা সিএনজি গুলোও। লকডাউনের ১২ দিন অতিবাহিত হতে না হতে প্রশাসনিক নিষেধাজ্ঞার তোয়াক্কা না করে কিছু মুনাফা লোভী অসাধু সিএনজি চালকরা ভাড়ায় গাড়ি চালাচ্ছে।

সোমবার সকাল ১১ টায় শহরের পুরাতন বাস স্টেশন এলাকার দোয়েল চত্বরের সামনে শহরের মূল সড়কে এমন কিছু বিনা কারণে সিএনজি নিয়ে বাহির হতে দেখা গেছে। কিন্তু প্রশাসনিক তৎপরতায় অনুমতিহীন ও কোনো নির্দিষ্ট কারণ দেখাতে না পারায় সিএনজি গুলো আটক করে পুলিশ। এসময় মোট তিনটি সিএনজি আটক করে ঘন্টা খানিক রেখে পুনরায় সিএনজি নিয়ে বাহির না হওয়ার নির্দেশ দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

অন্যদিকে স্থানীয় সূত্রে জানা যায় আসামবস্তি ভূট্টুর মিল থেকে কাপ্তাই উপজেলা পর্যন্ত যাত্রীবাহী সিএনজি প্রতিনিয়ত ভাড়া নিয়ে যাচ্ছে।

রাঙামাটি কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ মীর জাহিদুল হক রনি বলেন আসামবস্তি্র বিষয়টি আমি দেখবো। রাঙামাটিতে যারা কোনো কারণ ছাড়া সিএনজি নিয়ে বাহির হয় তাদের বিরুদ্ধে আমি ব্যবস্থা নিবো এবং যারা হাসপাতালে বা ত্রান নিয়ে যাবে তাদের প্রথমে কন্ট্রোল রুমে যোগাযোগ করে অনুমতি নিতে হবে।