ব্রেকিং নিউজ

সুমনের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর দুঃখ প্রকাশঃ দায়িত্বরত ডাক্তারদের নাম চাইলেন

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

বিনা চিকিৎসায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা অনুষদের ২২তম ব্যাচের ছাত্র সুমন চাকমার মৃত্যুতে দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, নিজের অসুস্থতা নিয়ে এক হাসপাতাল থেকে অন্য হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ঘুরাঘুরি করে কোন ডাক্তার না পেয়ে তাকে মারা যেতে হয়েছে। বিষয়টা অত্যন্ত কষ্টকর ও দুঃখজনক। ডাক্তাররা কেন চিকিৎসা করবে না?

মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) সকালে গণভবন থেকে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের জেলাগুলোর কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে মতবিনিময়কালে তিনি একথা বলেন।

আরো পড়ুনঃ ডাক্তারদের করোনা আতঙ্কে বিনা চিকিৎসায় মারা গেলো ঢাবি শিক্ষার্থী সুমন চাকমা

তিনি আরো বলেন, একজন রোগী এলে চিকিৎসা করাবে তার জন্য নিজেকে সুরক্ষিত করা যায়। অ্যাপ্রোন পরে নেন, মুখে মাস্ক লাগান, গ্লভস নেন, স্যানিটাইজার ব্যবহার করেন, হাত ধোন কিন্তু রোগী দেখেন। রোগী কেন ফেরত যাবে? আর একজন রোগী নিয়ে দৌড়াদৌড়ি করে সে রোগী কেন মারা যাবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ছাত্র কেন মারা যাবে। এই রোগী কোন কোন জায়গা গিয়েছে সেখানে কোন কোন ডাক্তারের দায়িত্ব ছিল আমি তাদের নামটাও জানতে চাই। কারণ ডাক্তারি করবার মতো, চাকরি করবার মতো তাদের সক্ষমতা নেই। তাদের চাকরি থেকে বের করে দেওয়া উচিত বলে আমি মনে করি।

প্রসঙ্গত, ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলেন সুমন চাকমা। সম্প্রতি তার ফুসফুসজনিত রোগও বেড়েছিল। শারীরীক অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসা জন্য বিভিন্ন হাসপাতালের দ্বারাস্থ হন তিনি। কিন্তু চিকিৎসা নিতে পারেননি। ২৬ মার্চ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে তার সর্বশেষ স্ট্যাটাস ছিল “আমার করোনা হয়নি, অথচ পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছে করোনার জন্যেই আমাকে মারা যেতে হবে”। এরপর সোমবার (৬ এপ্রিল ২০২০)সকালে বিনা চিকিৎসায় মারা যান ওই শিক্ষার্থী।