ব্রেকিং নিউজ

রাঙামাটির আরো ৬০ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেবেন ডিসি

॥ আলমগীর মানিক ॥

পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে ওএমএস ও ভিজিএফ সুবিধার বাইরে থাকা আরো অন্তত ৬০ হাজার পরিবারকে মানবিক সহায়তার আওতায় আনতে যাচ্ছে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন। জেলায় বর্তমানে বিশেষ ওএমএস, খাদ্য বান্ধব কর্মসূচী এবং ভিজিডি কর্মসূচীর আওতায় সহায়তা প্রাপ্ত ৪৩ হাজার ৯০০ পরিবার এর বাইরে থাকা দরিদ্র আরো ৬০ হাজার পরিবারকে মানবিক খাদ্য সহায়তার আওতায় আনছে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন কর্তৃপক্ষ।

রাঙামাটির জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ জানিয়েছেন, পুরো জেলায় খেটে খাওয়া দরিদ্র শ্রেণীর মানুষজন যারা করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন অবস্থায় ঘরবন্দি আছে সে সকল পরিবারদের বাছাই করে তাদের নামীয় তালিকা আগামী তিন তারিখের মধ্যেই ত্রাণ মন্ত্রণালয়ে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। মন্ত্রণালয়ের বিশেষ নির্দেশনা এই কার্যক্রম হাতে নিয়েছে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন কর্তৃপক্ষ। তালিকানুসারে এসব পরিবারগুলো বিশেষ কার্ডের মাধ্যমে প্রতি পরিবার এক মাসে সর্বোচ্চ ২০কেজি চাউল পাবে। ইতিমধ্যেই তালিকা তৈরি করে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে জমা দানের জন্য রাঙামাটির পৌরসভা, সকল উপজেলার ইউএনওদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করেছেন জেলা প্রশাসক।

জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, রাঙামাটি পৌর এলাকায় ৯ হাজার, সদর উপজেলায় ৫ হাজার, লংগদু উপজেলায় ৮ হাজার, বাঘাইছড়ি উপজেলা ও পৌরসভা মিলে ৯ হাজার ৬’শ, কাপ্তাই উপজেলায় ৬ হাজার, রাজস্থলী উপজেলায় ২ হাজার ৮’শ, বিলাইছড়ি উপজেলায় ২ হাজার ৮’শ, নানিয়ারচর উপজেলায় ৪ হাজার ৩’শ, জুরাছড়ি উপজেলায় ২১’শ বরকল উপজেলায় ৪ হাজার ৪’শ এবং কাউখালী উপজেলায় ৬ হাজার পরিবারকে মানবিক সহায়তার আওতায় আনা হবে।

জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন, আমরা বর্তমানে রাঙামাটিতে চলমান ওএমএস, খাদ্য বান্ধব এবং ভিজিডি কর্মসূচীর আওতায় যারা ইতিমধ্যেই সহায়তা পাচ্ছেন, তারা এই ৬০ হাজার পরিবারের তালিকার আওতায় আসবেনা। বর্তমান চলমান তালিকা প্রণয়নে কেউ যদি বাদ পড়ে বা কেউ যদি তালিকায় নাম তুলতে আগ্রহী হন, তাহলে তাদেরকে সংশ্লিষ্ট্য ওয়ার্ড মেম্বার, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান, পৌর কাউন্সিলরদের সাথে যোগাযোগ করার আহবানও জানিয়েছেন ডিসি মামুনুর রশিদ।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে রাঙামাটির ১০ উপজেলায় প্রায় ১৬ হাজার পরিবার ভিজিডি, খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর মাধ্যমে প্রায় সাড়ে ১৫ হাজার, দুইটি পৌরসভার মধ্যে রাঙামাটি পৌরসভায় বিশেষ ওএমএস পাচ্ছে ৯ হাজার ৬শ এবং বাঘাইছড়ি পৌরসভায় বিশেষ ওএমএস এর আওতায় রয়েছে ২৮০০ পরিবার।

এদিকে রাঙামাটির পৌরসভার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ইসলাম উদ্দিন জানিয়েছেন, পৌর এলাকায় বিশেষ মানবিক সহায়তার আওতায় ৯ হাজার এবং চলমান বিশেষ ওএমএস কর্মসূচীর আওতায় ৯হাজার ৬শ পরিবারসহ মোট ১৮ হাজার ৬শ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করবে সরকার।

তালিকায় অর্ন্তভূক্ত এসব পরিবারের তথ্যাবলি ওয়েব সাইটে সংরক্ষণ করা হবে জানিয়ে জনাব ইসলাম জানান, এসব তালিকা থেকে যদি কোনো একটি পরিবারও বাদ পড়ে, তাহলে সেসকল পরিবারদেরকেও সাধারণ ত্রাণের আওতায় আনা হবে। যাতে করে একটি পরিবারও ত্রাণ সহায়তা প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত না থাকে, সেই লক্ষ্যেই কাজ করছে পৌরসভা ও রাঙামাটি জেলা প্রশাসন কর্তৃপক্ষ।