ব্রেকিং নিউজ

অসহায়দের ঈদের উপহার দিলেন এএসআই অঞ্জন ও নূরআলম

॥ ইকবাল হোসেন ॥

করোনা দূর্যোগের ফলে কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় পরিবারের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ঈদ উপহার পৌঁছে দিয়েছেন রাঙামাটি কোতয়ালী থানার এএসআই অঞ্জন দে ও হ্যাপির মোড় এলাকার বাসিন্দা মো. নূর আলম। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে এএসআই অঞ্জন দে ও হ্যাপির মোড় এলাকার বাসিন্দা মো. নূর আলম সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে শহরের বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে তালিকাভুক্ত ১০০টি কর্মহীন অসহায় পরিবারের বাড়ি বাড়ি গিয়ে আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ঈদ উপহার পৌঁছে দেন।

তারা প্রত্যেকটি পরিবারকে (চাউল, ডাল, পেঁয়াজ, সয়াবিন তেল, আলু, দুধ, ৪ প্রকারের সেমাই, লাচ্ছি, নুডলস, মটর, চিনি) ঈদ উপহার হিসেবে পৌঁছে দিয়েছে।

এবিষয়ে কোতয়ালী থানার এএসআই অঞ্জন দে প্রতিবেদককে বলেন, মহামারী করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেওয়ার পর থেকেই কর্মহীন অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর ইচ্ছা ছিলো। কিন্তু ইচ্ছা থাকলেও আমার একার পক্ষে ১০০টি পরিবারের পাশে দাঁড়ানো সম্ভব ছিলো না। তাই প্রথমে হ্যাপির মোড়ের নূর আলমকে আমি আমার এই ইচ্ছার কাথা জানাই। এরপর আমরা দুইজন উদ্যোগ নিয়ে ব্যক্তিগতভাবে নিজেদের সাধ্যমতো সহযোগিতা করার পাশাপাশি আমাদের পরিচিতদের সাথে বিষয়টি শেয়ার করি। আজ সকলের সহযোগিতায় আমরা শহরের বিভিন্ন এলাকার ১০০টি অসহায় পরিবারের হাতে ঈদ উপহার তুলে দিতে সক্ষম হয়েছি।

আমাদের এই মহৎ উদ্যোগের ডাকে সারা দিয়ে সহযোগিতা করেছেন- সিএমপির সার্জেন্ট শাহেদ ইকবাল সুজন ও সার্জেন্ট শাহাদাৎ হোসেন, চট্টগ্রামের এআর সাইফুল ও রাজিব রিয়াজ, রিজার্ভ বাজারের ঠিকাদার মহসিন, মাঝেরবস্তির নুর ইসলাম, কালিন্দিপুরের আব্দুল মান্নান, চম্পক নগরের শুভ চাকমা ও আব্দুল বারেক, ফরেস্ট কলোনির কামাল উদ্দীন, হ্যাপির মোড়ের খান এন্টারপ্রাইজ। এই উদ্যোগকে সফল করতে যারা সহযোগিতা করেছেন তাদেরকে অশেষ ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি সমাজের বিত্তবানদের করোনা দূর্যোগের ফলে অসহায় হয়ে পড়া পরিবারদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।