খাগড়াছড়িতে করোনা আক্রান্ত ২৯ঃ মানিকছড়িতে উপসর্গ নিয়ে গার্মেন্টস কর্মীর মৃত্যু!

খাগড়াছড়ির মানিকছড়িতে চট্টগ্রাম থেকে আসা এক নারী গার্মেন্টস কর্মীর ‘করোনা’ উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুর পর ওই ব্যক্তির বাড়ি লকডাউন করেছে প্রশাসন। মঙ্গলবার(২৬ মে) বিকালে উপজেলার যোগ্যাছোলা এলাকায় তার মৃত্যু হয়। স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীরা ওই দিন রাত ১০টায় মৃত ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করার পর করোনা রোগির আদলে ইসলামী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে স্বেচ্ছাসেবী দল মৃত ব্যক্তির লাশ দাফন করে।

এ দিকে খাগড়াছড়িতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরো ৮জন করোনা আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৯ জন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে খাগড়াছড়ি সিভিল সার্জন ডাক্তার নুপুর কান্তি দাশ জানিয়েছেন, আক্রান্তদের মধ্যে খাগড়াছড়ি জেলা সদরের গোলাবাড়ীতে একজন, কমলছড়ির ইটছড়িতে একজন কমলছড়ির ইটছড়িমুখে একজন, মহালছড়িতে দুইজন জন, মাটিরাঙার বাবু পাড়ায় একজন, দীঘিনালায় একজন ও পানছড়িতে একজন জন। তবে আক্রান্তদের মধ্যে এ পর্যন্ত ৪ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রতন খীসা জানান, পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত ১৯ মে ওই নারী গার্মেন্টস গোপনে মানিকছড়ি উপজেলার ৩ নং যোগ্যাছোলা গ্রামের বাড়িতে ফেরার পর থেকে সর্দি, কাশি, জ্বর ও গলা ব্যথায় ভুগছিল। কিন্তু হাসপাতালে না গিয়ে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসকের কাছে চিকিৎসা নেয়।

অবশেষে মঙ্গলবার বিকাল মৃত্যুর পর পারিবারিকভাবে লাশ দাফনের চেষ্টা করলে গ্রামবাসী বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আনলে সন্ধ্যার দিকে স্বাস্থ বিভাগ ও পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে।