মহালছড়ির মাইসছড়ি ও ক্যায়াংঘাট ইউনিয়নে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা

॥ মহালছড়ি প্রতিনিধি ॥

খাগড়াছড়ির মহালছড়ি উপজেলার মাইসছড়ি ও ক্যায়াংঘাট ইউনিয়নে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। গত ২৮ মে বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় মাইসছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের সভাকক্ষে মাইসছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান সাজাই মারমার সভাপতিত্বে সকল ইউপি সদস্যের উপস্থিতিতে এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে নিয়ে মাইসছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ সচিব প্রীতি বিন্দু চাকমার সঞ্চালনায় বাজেট অধিবেশন শুরু হয়। অধিবেশনে ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরের সংশোধিত বাজেটের আয় ও ব্যয়ের হিসাব দাখিল এবং ২০২০-২১ অর্থবছরের সম্ভাব্য বাজেট পেশ করা হয়। ২০২০-২০২১ অর্থবছরের সম্ভাব্য রাজস্ব আয় ধরা হয়েছে, ৭ লক্ষ ৭০ হাজার এবং উন্নয়ন খাতে সম্ভাব্য আয় ধরা হয়েছে ৩৫ লক্ষ টাকা।

বাজেট অধিবেশন চলাকালীন উন্মুক্ত আলোচনায় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সাজাই মারমা বর্তমান বৈশি^ক মহামারি করোনা ভাইরাস ( কোভিড-১৯) সংক্রমন রোধে সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে জনস্বার্থে কাজ করার অনুরোধ জানিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের রাজস্ব আয় বৃদ্ধির উপড় গুরুত্বারোপ করেন এবং বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানান।

এদিকে ৩০ মে শনিবার বিকাল ২ টায় ক্যায়াংঘাট ইউনিয়ন পরিষদের সভাকক্ষে ক্যায়াংঘাট ইউপি চেয়ারম্যান বিশ^জিৎ চাকমার সভাপতিত্বে সকল ইউপি সদস্যের উপস্থিতিতে এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ সচিব প্রয়াসী চাকমার সঞ্চালনায় বাজেট অধিবেশন শুরু হয়। অধিবেশনে ২০১৯-২০ অর্থ বছরের সংশোধিত বাজেটের আয় ও ব্যয়ের হিসাব দাখিল এবং ২০২০-২০২১ অর্থ বছরের সম্ভাব্য বাজেট পেশ করা হয়। ২০২০-২০২১ অর্থবছরের সম্ভাব্য রাজস্ব আয় ধরা হয়েছে, ৫ লক্ষ ২০ হাজার এবং উন্নয়ন খাতে সম্ভাব্য আয় ধরা হয়েছে ৪৮ লক্ষ ১০ হাজার ২ শত ৮৪ টাকা।

বাজেট অধিবেশনে উন্মুক্ত আলোচনায় সভায় সভাপতির বক্তব্যে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বিশ^জিৎ চাকমা বলেন, বর্তমান বৈশি^ক মহামারী করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা করে বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারাকে গতিশীল করার লক্ষ্যে এলাকার উন্নয়নকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করে যাবেন তিনি। সম্ভাব্য এ বাজেট ঘোষণা করে এলাকার সর্ব সাধারণ ইউনিয়ন পরিষদ বর্গের প্রতি সন্তোষ প্রকাশ করেন।