ব্রেকিং নিউজ

স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাফন করা হল ভেদভেদীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ব্যাক্তিটিকে

॥ শহিদুল ইসলাম হৃদয় ॥

রাঙামাটি শহরের ভেদভেদীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ৬৫ বছরের ব্যাক্তিটির দাফন কার্যক্রম সম্পূর্ণ হয়েছে। শনিবার রাত ৯ টায় ভেদভেদী কেন্দ্রীয় কবরস্থানে বৃদ্ধের দাফন সম্পূর্ণ করা হয়েছে। এর আগে রাত ৮ টা ৩০ মিনিটে ভেদভেদী বাজারে তার জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর উত্তম কুমার দাশ, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অঞ্জন কুমার দাশ, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক মো. ইকবাল বাহার চৌধুরী, জেলা প্রশাসন ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের “করোনা রেসপন্স টিম” এর ফজলুল করিম, শেখ শুক্কুর আলী, মো. মিরাজ উদ্দীন, নাজিম আল হাসান, মাহাবুব আলম, শহিদুল ইসলাম ও মৃতের আত্মীয়-স্বজন উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে স্বেচ্ছায় মৃতের কবর খনন করেছে, ২০১৭ সালের পাহাড় ধ্বসে নিহতদের কবর খননকারী সংগঠন ভেদভেদীর “তারুণ্য স্পোর্টিং ক্লাব”। ক্লাবের সদস্যদের মধ্যে কবর খনন কাজে নিয়জিত ছিলেন, ক্লাবের সভাপতি শাহ ফারুকক পিন্টু, সাধারণ সম্পাদক আহসানুল হক শামসু, সাংগঠনিক সম্পাদক রাশেদ আহমেদ, অর্থ সম্পাদক মীর হাবিবুর রহমান, ক্রীড়া সম্পাদক মীর হাছিবুর রহমান, পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ শামীম, প্রচার সম্পাদক মোঃ রাসেল, কার্যকরী সদস্য মোঃ সেলিম, সদস্য মোঃ ইউসুফ, মোঃ আরজু, মোঃ যামিল, মোঃ রিদয় মোঃ রিফাত, মোঃ ফাহিম, মোঃ মেহরাজ, মোঃ ইমরান প্রমুখ।

অন্যদিকে যারা মৃতের সংস্পর্শে ছিলো যেমন করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ব্যাক্তিটির পরিবারের সদস্য ও আত্মীয়-স্বজনদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর উত্তম কুমার দাশ।

উল্লেখ্য, শনিবার বিকেলে রাঙামাটি শহরের ভেদভেদীতে ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধ ব্যাক্তি করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যায়। উক্ত ব্যাক্তির নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট না আসায় তিনি আসলেই করোনায় আক্রান্ত ছিলেন কিনা জানা না গেলেও যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনেই তাকে দাফন করে প্রশাসন।