এখনো ত্রাণ হাতে পাহাড়ের দূর্গম এলাকার অসহায়দের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছে সেনাবাহিনী

॥ খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি ॥

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার পানছড়ি উপজেলার দূর্গম বড় পানছড়িপাড়া, প্রদীপপাড়া ও সাওতালপাড়াসহ অন্তত ১০টি গ্রামে খাদ্য সহায়তাসহ ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে সেনাবাহিনী। হোম কোয়ারান্টাইনে থাকা নিন্মবিত্ত, গরিব, অসহায় এবং দুস্থ জনগোষ্ঠীদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

সোমবার দুপুরে সেনাবাহিনীর খাগড়াছড়ি সদর জোনের অধিনায়ক লে: কর্ণেল জাহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে এলাকার হত-দরিদ্র ও দুস্থ চাকমা, ত্রিপুরা, মারমা ও সাওতাল সম্প্রদায়ের সাড়ে ৩৫০ পরিবারকে ঘরে ঘরে গিয়ে ত্রান সহায়তা পৌঁছে দেন সেনাবাহিনীর সদস্যরা।

এছাড়াও সামাজিক দুরত্ব মেনে বড় পানছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনেও বেশ কিছু পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা বিতরণ করা হয়। এ সময় খাগড়াছড়ি সদর জোন উপ-অধিনায়ক মেজর চৌধুরী ফাহিদ আশরাফি ও পানছড়ি সাব জোন কমান্ডার ক্যাপ্টেন আহসান হাবিব উপস্থিত ছিলেন।

সেনাবাহিনীর চট্টগ্রাম ২৪ পদাতিক ডিভিশনের সহায়তায় এসব ত্রান সাহায্য বিতরণ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সেনা কর্মকর্তারা। ত্রাণ বিতরণকালে জোন কমান্ডার জরুরী প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বাহির না হওয়া ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ জানান। পাশাপাশি সাবান দিয়ে হাত ধোয়া এবং বাইরে আসলে মাস্ক ব্যবহারের গুরুত্বরোপ করেন।

তিনি এ সময় সাংবাদিকদের বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি, সম্প্রীতি এবং উন্নয়ন এই মুলমন্ত্রকে সামনে রেখে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী দীর্ঘদিন ধরে অত্যন্ত দক্ষতার সাথে পেশাগত দায়িত্ব পালন করে আসছে। আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের পাশাপাশি শিক্ষা, চিকিৎসাসহ সকল সম্প্রদায়ের মাঝে সম্প্রীতি রক্ষায় পাহাড়ের জনগনের জানমাল রক্ষা ও যেকোন দুর্যোগ মোকাবেলায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে এবং এ ধারা অব্যাহত থাকবে বলে জানান।