বাঘাইছড়িতে হঠাত বিষাক্ত সাপের উৎপাত!

॥ বাঘাইছড়ি প্রতিনিধি ॥

বাঘাইছড়িতে আশংকাজনক হারে বেড়েছে সাপের উপদ্রব। গত এক সপ্তাহের ব্যবধানে তিন গ্রামবাসী সাপের কামড়ে আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। হঠাৎ সাপের উপদ্রব বৃদ্ধি পাওয়ায় স্থানীয়দের মাঝে কিছুটা আতঙ্ক বিরাজ করছে।

২৭ জুন শনিবার দুপুরে নিজ বাড়ীর উঠানে সাপের কামড়ের শিকার হন উপজেলা শিক্ষা অফিসের কর্মচারী মারিশ্যা ইউনিয়নের বাসিন্দা সুমন্ত চাকমা(৩৫)। মারাত্ত্বক অসুস্থ্ অবস্থায় স্পীড বোটে তাকে নেয়া হয় রাঙ্গামাটি জেনারেল হাসপাতালে। সেখানেই তিনি চিকিৎসাধীন আছেন।

সুমন্ত চাকমা জানান, নিজ আঙ্গিনায় চেয়ারে বসে ডাবা খাচ্ছিলেন তিনি এমন সময় ব্যাঙ তাড়া করে একটি সাপ দৌড়ে এসে তার পায়ে কামড় দেয় এর পর সে অজ্ঞান হয়ে পড়লে তার বাড়ির লোকেরা তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। ৩০ জুন বাঘাইছড়ি ইউনিয়নে বড় খোল্লা চাকমা( ৪০) ও ২ জুলাই বৃহস্পতিবার চৌমুহনী সদরে রবি অফিসের সামনে বিমল কান্তি চাকমা(২৮) এক যুবকের হাতে কামড় দেয় বিষধর সাপ। তার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় সেখানেই তিনি চিকিৎসাধীন আছেন বলে জানা যায়।

এছাড়াও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডেন্টাল চিকিৎসক তাপস চাকমার বাড়ীতেও বিষধর একটি সাপের দেখা পাওয়া যায় তার সয়ন কক্ষে খাটের উপড় সাপটি দেখতে পেয়ে চিৎকার করলে স্থানীয় কিছু যুবক সেটিকে পিটিয়ে হত্যা করে। এছাড়াও উপজেলার আশপাশে বহু জায়গায় সাপের আনাগোনা চোখে পড়ছে হঠাৎ কি কারনে সাপের এমন উপদ্রব তা জানা নেই স্থানীয়দের।

উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ আলী হোসেন বলেন হঠাৎ সাপের উপদ্রব আমাদের ভাবিয়ে তুলছে বিষয়টি নিয়ে আমরা খুবই চিন্তিত। তবে পরিবেশগত সমস্যা ও খাবারের অভাবে সাপগুলো লোকালয়ে চলে আসছে বলে আমারা ধারণা করছি।