ব্রেকিং নিউজ

জুরাছড়িতে নির্মাণাধীন ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবনে বাউন্ডারী ওয়ালের দাবী

॥ স্মৃতিবিন্দু চাকমা ॥

জুরাছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের কমপ্লেক্স ভবনের প্রায় ৮০ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। আশা করা হচ্ছে আগামী ২০২১ সালে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের আগে নিজস্ব নতুন কমপ্লেক্স ভবনে দাপ্তরিক কার্যক্রম চালাতে পারবেন বর্তমান পরিষদ। বিগত ২০১৮ সালের শেষ দিকে জুরাছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণের কার্য্যাদেশ কর্তৃপক্ষ দিয়ে থাকে কিন্তু ভবনটি নির্মাণের জায়গায় কিছু স্থাপনা থাকার কারণে ৯মাস সময় অতিবাহিত করতে হয়। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহফুজুর রহমানের উচ্ছেদ অভিযানের পর কমপ্লেক্স ভবনের ঠিকাদার চিরঞ্জীব চাকমা কাজ শুরু করে।

সীবলী এন্টার প্রাইজের সত্বাধীকারী প্রতিষ্ঠানের ঠিকাদার চিরঞ্জীব চাকমা মুঠোফোনে জানান, বিশ্বে মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে মাঝখানে অবকাঠামো নির্মাণ কাজ কিছুটা বন্ধ ছিল। বর্তমানে কমপ্লেক্স ভবনের কাজ ৮০ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে, আশাকরি দুই মাসের মধ্যে কর্তৃপক্ষকে কমপ্লেক্স ভবন বুঝিয়ে দিতে পারব।

ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ক্যাানন চাকমা থেকে জানতে চাইলে তিনি জানান, ঠিকাদার দ্রুতগতিতে নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছে, আশাকরি আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের আগে কমপ্লেক্স ভবনে দাপ্তরিক কার্যক্রম করতে পারব। তিনি আরো জানান, ভবনের চতুরদিকে বাউন্ডারী ওয়াল করা না গেলে আসতে আসতে ভবনের মাটি সড়ে যাবে, তাই বরাদ্দ বাড়িয়ে বাউন্ডারী ওয়াল নির্মাণ করে দেওয়ার জন্য কর্তৃপক্ষের প্রতি সুদৃষ্টি কামনা করেন।

এলজিইডি উপজেলা প্রকৌশলী মোহাম্মদ মতিউর রহমান এর সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, কাজে অগ্রগতি অনেকটা বৃদ্ধি পেয়েছে,তাই যতদ্রুত সম্ভব কাজ শেষ করার জন্য ঠিকাদারকে তাগিদ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও তিনি জানান, কমপ্লেক্স ভবনের বাউন্ডারী ওয়ালের বিষয়ে কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হবে,ভবনের নিরাপত্তার স্বার্থে বাউন্ডারী ওয়ালের প্রয়োজন বোধ মনে করেন মতিউর রহমান।